Home / দেশজুড়ে / চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৩,৭২৪টি কুকুরকে জলাতঙ্কের টিকাপ্রদান

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৩,৭২৪টি কুকুরকে জলাতঙ্কের টিকাপ্রদান

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার উদ্যোগে জাতীয় জলাতঙ্ক নির্মূল কর্মসূচির অংশ হিসাবে কুকুরে কামরের আধুনিক চিকিৎসার পাশাপাশি সারাদেশে ব্যাপক হারে কুকুরের জলাতঙ্ক প্রতিষোধক টিকাদান কর্মসূচি অব্যাহত রযেছে। তারই ধারাবাহিকতায় সমগ্র চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সকল উপজেলায় জলাতঙ্ক প্রতিরোধে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচি ৩ মার্চ শেষ হয়েছে। ২৭ ফেব্রুয়ারি হতে শুরু হওয়া ৫ দিন ব্যাপী এ কর্মসূচিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর, শিবগঞ্জ, গোমস্তাপুর, নাচোল ও ভোলাহাট উপজেলার পৌরসভা ও সকল ইউনিয়নে দেখতে পাওয়া ১৭,০৫২টি কুকুরের মধ্যে ১৩,৭২৪টি কুকুরকে জলাতঙ্ক প্রতিরোধক টিকাপ্রদান করা হয়। যা শতকরা ৮০ ভাগ কুকুরকে টিকা প্রদান করা হয়।

ব্যাপকহারে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচি সম্পর্কে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার র্কমকর্তা ডাঃ রায়হান বলেন, একটি নির্দিষ্ট এলাকায় শতকরা ৭০ভাগ কুকুরকে প্রতিবছর পরপর ৩ বার জলাতঙ্ক প্রতিষোধক টিকাপ্রদান করা হলে ঐ এলাকার কুকুর গুলোতে জলাতঙ্কের বিরুদ্ধে হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হবে। ফলে কুকুরের কামড়ে মানুষের জলাতঙ্ক রোগ হওয়ার প্রবণতা শুন্যের কোঠায় চলে আসবে। তিনি আরো বলেন বাংলাদেশ সরকারের লক্ষ হিসাবে ২০২২ সালের মধ্যে দেশের সকল জেলায় পরপর তিনবার কুকুর টিকাদান করা সম্ভব হলে বাংলাদেশ হতে জলাতঙ্ক নামক মরণব্যাধি নির্মূল করা সম্ভব।

এছাড়াও সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এম এ মতিন বলেন, সবার সহযোগিতা ও সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সদর উপজেলা সহ জেলার সকল উপজেলায় সফলভাবে এমডিভি কার্যক্রম সমাপ্ত হওয়ায় চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ। তিনি আশা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ন্যায় পরবর্তীতে অন্যান্য জেলায় এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকলে সকলে মিলে কর্মসূচি সফল করে জলাতঙ্ক মুক্ত দেশ গড়তে সহজ হবে।

Check Also

লঞ্চ চালুর হদিস নেই, আরেকটি ঘাটের অনুমোদন

নিউজ ডেস্ক: লক্ষ্মীপুর-ঢাকা লঞ্চ সার্ভিস চালু না হলেও নতুন আরেকটি লঞ্চঘাট অনুমোদন দিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ। নতুন …

%d bloggers like this: