Home / আর্ন্তজাতিক / প্রত্যাবর্তনে আপ্লুত ভারত, উত্তেজনা কমার আশা

প্রত্যাবর্তনে আপ্লুত ভারত, উত্তেজনা কমার আশা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বৈমানিক অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতের কাছে হস্তান্তর করেছে পাকিস্তান, যার মধ্য দিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনা কমবে বলে আশা

শুক্রবার রাতে অভিনন্দন ফিরে আসার পরপর তাকে স্বাগত জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এক টুইটে লিখেছেন, “ওয়েলকাম হোম উইং কমান্ডার অভিনন্দন! তোমার দৃষ্টান্তস্থাপনকারী সাহসিকতায় জাতি গর্বিত। আমাদের সশস্ত্র বাহিনী ১৩০ কোটি ভারতবাসীর অনুপ্রেরণা। বন্দে মাতরম!”

অভিনন্দন দেশে ফেরায় ভারতজুড়ে উৎসবের আমেজ চলছে বলে লিখেছে টাইমস অফ ইন্ডিয়া। বিমান বাহিনীর এই পাইলটকে ‘সত্যিকার হিরো’ হিসেবে বর্ণনা করে টুইট করেছেন ভারতের ক্রীড়া ও অভিনয় জগতের তারকারা।

বিবিসির দক্ষিণ এশিয়া প্রতিনিধি রজীনী বৈদ্যনাথ মনে করছেন, পাকিস্তানের এই পদক্ষেপের মধ্য দিয়ে দুই দেশ যুদ্ধের দুয়ার থেকে ফিরছে।

তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তানের মাটিতে ‘জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা’ বন্ধের বিষয়ে দেশটির কাছে স্পষ্ট প্রতিশ্রুতি চায় ভারত। শুক্রবারই পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিবিসিকে বলেছেন, এ বিষয়ে কাজ করবেন তিনি।

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে চলমান উত্তেজনা প্রশমনে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া। ক্রেমলিনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে টেলিফোন করে দ্রুত সংকটের সুরাহা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন।

Embedded video

Geetika Swami@SwamiGeetika


Watch at the euphoric crowd Chanting Jai Jawan Jai and Bharat mata ki Jai Kisan, pre celebrating ‘s return during PM Modi’s rally In Andhra Pradesh. Welcome back Our Hero!

308 people are talking about this

এই প্রেক্ষাপটে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশী শুক্রবার রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভকে টেলিফোন করে তাদের মধ্যস্ততার প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছেন বলে পাকিস্তানের দৈনিক ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

রাশিয়ার এই প্রস্তাবের আগের দিন বৃহস্পতিবারই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমেরিকার মধ্যস্ততায় ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা কমছে।

এই ধরনের মধ্যস্ততার মধ্য দিয়েই এ সংকট থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন ইউএস ইনস্টিটিউট অফ পিসের বিশেষজ্ঞ মোঈদ ইউসুফ। অতীতেও নয়া দিল্লি ও ইসলামাবাদের মধ্যে সংকট তৈরি হলে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে চীন, ব্রিটেন ও রাশিয়া মিলে মধ্যস্ততায় সুফল মেলার কথা বলেছেন তিনি।

এর জের ধরে মঙ্গলবার ভোররাতে ভারতের বিমান বাহিনী নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে পাকিস্তানের বালাকোটে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানা লক্ষ্য করে বোমাবর্ষণ করলে পরিস্থিতি নতুন মোড় নেয়।এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর অন্তত ৫০টি স্থানে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের দিকে মর্টার শেল ছোড়ে পাকিস্তানি সৈন্যরা।

তারপর বুধবার সকালে পাকিস্তানি জঙ্গি বিমান ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় নওশেরা সেক্টরে বোমাবর্ষণ করলে আকাশে শুরু হয় লড়াই। পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ভূপাতিত হয় ভারতের একটি মিগ-২১ বিমান, প্যারাশুট দিয়ে নেমে পাকিস্তানি সেনাদের হাতে বন্দি হন পাইলট অভিনন্দন বর্তমান।

ভারতের জাতীয় নির্বাচনের আগে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানে ঢুকে জঙ্গি আস্তানায় হামলা চালানোর নির্দেশ দেওয়ার প্রধামন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভোটের পাল্লায় লাভবান হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছিল।

বালাকোট অভিযানের পর থেকে ভারতীয় গণমাধ্যম ও রাজনীতির অঙ্গনেও প্রবল জাতীয়তাবাদী প্রচারের প্রকাশ ঘটছিল। কিন্তু অভিনন্দন পাকিস্তানি সেনাদের হাতে ধরা পড়ার পর পরিস্থিতি উল্টে যায়।

এই প্রেক্ষাপটে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বৃহস্পতিবার ঘোষণা দেন, শান্তির নিদর্শন হিসেবে ভারতীয় বৈমানিককে ফিরিয়ে দেবেন তারা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, অভিনন্দনকে ফিরিয়ে দিতে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ শুক্রবার সকালে ইসলামাবাদ থেকে সড়কপথে তাকে লাহোরে নিয়ে যায়। সেখান থেকে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর একটি গাড়িতে করে বিকালে তাকে নেওয়া হয় ওয়াগা সীমান্তে।

সেখানে অভিনন্দনের ডাক্তারি পরীক্ষা হয়। এরপর ওয়াগা-আতারি সীমান্তে দীর্ঘ চার ঘণ্টা ধরে চলে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা। জেনিভা কনভেনশন অনুযায়ী কাগজপত্র ঠিক করতে দুই দফা হস্তান্তরের সময় পরিবর্তন করে পাকিস্তান।

Embedded video

Doordarshan News

@DDNewsLive

: IAF’s Wing Commander returns home

624 people are talking about this

শেষ পর্যন্ত স্থানীয় সময় রাত ৯টার পর সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করেন অভিনন্দন। তাকে গ্রহণের পর আবারও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

ছেলেকে আনতে আগেই ওয়াগা সীমান্তে পৌঁছান অভিনন্দনের বাবা অবসরপ্রাপ্ত এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা শোভা বর্তমান। ভারতীয় বিমান এবং সেনা বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তারাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

অভিনন্দনকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড- বিসিসিআই। ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের জার্সিতে উইং কমান্ডার অভিনন্দন লিখে তার নিচে লেখা হয়েছে ‘১’ ।

ওয়েলকাম হোম অভিনন্দন হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে বিসিসিআই লিখেছে, “তুমি আকাশ শাসন করেছ এবং আমাদের হৃদয় জয় করেছ।তোমার সাহস ও আত্মমর্যাদাবোধ প্রজন্মের পর প্রজন্মকে টিমইন্ডিয়ায় যোগ দিতে অনুপ্রাণিত করবে।”

ভারতের ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুকার এক টুইটে লিখেছেন, “একজন হিরো শুধু চার অক্ষরের চেয়ে অনেক বেশি কিছু। সাহস, নিষ্ঠা ও নিঃস্বার্থ আচরণের মধ্য দিয়ে আমাদের নায়ক নিজেদের ওপর আস্থা রাখতে শেখালেন। #ওয়েলকামহোমঅভিন্দন জয় হিন্দ!”

ভারতের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি টুইটে লিখেছেন, “রিয়েল হিরো, আমি তোমার কাছে মাথা নত করি। জয় হিন্দ।”

বলিউড তারকা শাহরুখ খান লিখেছেন, “তোমার সাহসিকতা আমাদের আরও শক্তিশালী করেছে। অন্তর থেকে তোমার প্রতি কৃতজ্ঞ।”

বুধবার অভিনন্দন ধরা পড়ার তার একটি ভিডিও সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছিল পাকিস্তানের আইএসপিআর। ওই ভিডিওতে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর প্রশংসা করতে শোনা যায় ভারতীয় জঙ্গি বিমানের এই পাইলটকে।

শুক্রবার তাকে ফেরত দেওয়ার আগেও অভিনন্দনের ওই রকম কথার একটি ভিডিও সম্প্রচার হয় পাকিস্তানি টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে।

বিবিসি বলছে, ওই ভিডিওতে অভিনন্দন বর্তমানের বক্তব্য কাটছাঁট করা হয়েছে বলেই তাদের মনে হয়েছে। সেখানে এই উইং কমান্ডারকে কীভাবে বিমানে গুলি লেগেছিল এবং কাশ্মীরে নামার পর উত্তেজিত জনতার হাত থেকে তাকে পাকিস্তানি সৈন্যদের উদ্ধারের ঘটনা বর্ণনা করতে শোনা যায়।

“পাকিস্তান আর্মি সত্যিকারে আমার খুব যত্ন নিয়েছে। তারা খুবই পেশাদার,” বলতে শোনা যায় তাকে।

‘হিরো’ ইমরান, ‘ভিলেন’ মোদী

একটি মাত্র সিদ্ধান্ততেই নাটকীয় মোড় নিয়েছে দুই দেশের রাজনীতি। অভিনন্দনকে ফেরানোর সিদ্ধান্তে যেন রাতারাতি ‘হিরো’ হয়ে উঠেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

Embedded video

Govt of Pakistan

@pid_gov

Pakistan offers an olive branch to protect the entire region from War by releasing an Indian Pilot WG Abhinandan Varthaman as announced by Prime Minister Imran Khan.

676 people are talking about this

স্যোশাল মিডিয়ায় অনেকেই তার প্রসংশা করছেন। ইমরানকে ‘প্রকৃত রাষ্ট্রনায়ক’ হিসেবেও বর্ণনা করেছেন অনেকে।

অন্যদিকে নানা প্রশ্ন আর সমালোচনা ঝড়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অবস্থা হয়েছে ভিলেনের মতোই।

কয়েক দিনের যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব এবং তা নিয়ে অনেকের উচ্ছ্বাস ভারতে লোকসভা ভোটের আগে মোদীর দল বিজেপির জনসমর্থন বাড়ার লক্ষণ বলে মনে করা হচ্ছিল।

কিন্তু এখন পরিস্থিতি যেদিকে মোড় নিয়েছে তাতে নিজ দেশেই মোদীকে সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে। ক্ষমতা আঁকড়ে রাখার চেষ্টায় আসন্ন নির্বাচনে ভোট টানতে তিনি যুদ্ধের রাজনীতির পথে হেঁটেছেন বলে অভিযোগ করছে বিরোধী শিবির।

Check Also

প্যারিসের জলবায়ু আন্দোলনে সংঘর্ষ

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ফ্রান্সের প্যারিসে পুলিশের সাথে নৈরাজ্যবাদী বিক্ষোভকারীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। জলবায়ু আন্দোলনে ‘অনুপ্রবেশ’ করে …

%d bloggers like this: