Home / বিনোদন / চলচ্চিত্র / ১৩ পেরিয়ে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’

১৩ পেরিয়ে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’

বিনোদন ডেস্ক: ৮ অক্টোবর পথচলার ১৩ বছর পেরিয়ে ১৪ বছরে পদার্পণ করছে দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স প্রেক্ষাগৃহ ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’। এ উপলক্ষে দর্শকদের জন্য থাকছে বিশেষ উপহারসহ নানারকম আকর্ষণীয় অফার।

দেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের বিশ্বমানের প্রেক্ষাগৃহ উপহার দেওয়ার লক্ষ্যে ২০০৪ সালের ৮ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে যাত্রা শুরু করে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’। নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসংবলিত সাউন্ড সিস্টেমসহ নানা অভিনবত্বের মধ্য দিয়ে দর্শকদের মন জয় করে প্রেক্ষাগৃহটি।   হলিউডের নতুন নতুন ছবি বড় পর্দায় দেখার সুযোগ দেশের দর্শকদের কাছে এখন আর স্বপ্ন নয়। আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনই এখন দর্শকরা দেখতে পাচ্ছেন হলিউডের সাড়া জাগানো সব ছবি।

হলিউডের ছবির পাশাপাশি সুস্থ ধারার দেশীয় ছবিও নিয়মিতভাবে প্রদর্শিত হচ্ছে এই প্রেক্ষাগৃহে। শুধুমাত্র প্রেক্ষাগৃহ নয়, এটি এখন নগরবাসীর অন্যতম একটি বিনোদনকেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। যার ফলে অগণিত মানুষের প্রিয় নাম হয়ে উঠেছে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’। পথচলার শুরু থেকেই দর্শকদের হলমুখী করতে এর নানারকম পদক্ষেপ লক্ষণীয়। রুচিশীল দর্শকরা যখন পরিবার নিয়ে সুন্দর ও নিরাপদ পরিবেশে সিনেমা উপভোগের অভাববোধ করছিল তখন ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’-এর যাত্রা সেই অভাববোধ লাঘবে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

সিনেমা প্রদর্শনের ক্ষেত্রেও মননশীলতার পরিচয় দেয় প্রেক্ষাগৃহটি। ভালো মানের সিনেমার পাশে সব সময় থাকার চেষ্টা করে তারা। সিনেমা প্রদর্শনের পাশাপাশি বিশেষ দিবসগুলোতে নানারকম ইভেন্ট করেও যথেষ্ট সাড়া পায়।

বর্তমানে একটি ভিআইপি হলসহ মোট ছয়টি হল রয়েছে এখানে। কক্সবাজারের হোটেল সায়মন-এ একটি হল চালু হয়েছে। শিগগিরই ঢাকার সীমান্ত স্কয়ার (সাবেক রাইফেলস স্কয়ার)-এ একটি হল চালু হতে যাচ্ছে। আগামীতে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আরো কিছু হল চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান কর্তৃপক্ষ। সেই সাথে নিজস্ব প্রযোজনায় সুস্থ ধারার বাংলা চলচ্চিত্র দর্শকদের সামনে নিয়ে আসার পরিকল্পনাও রয়েছে তাদের।

Check Also

তামাকের বিরুদ্ধে “সিগারেট”

নাসিফ শুভ: স্লো পয়জন হিসেবে সিগারেট সারা বিশ্বব্যাপী পরিচিত। ধূমপানে একদিকে যেমন নিজের ক্ষতি হয়, …

%d bloggers like this: