Home / খেলাধুলা / হেরাথের ঘূর্ণি জাদুতে ‘অসম্ভব’ জয় পেল শ্রীলঙ্কা

হেরাথের ঘূর্ণি জাদুতে ‘অসম্ভব’ জয় পেল শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক: আবুধাবি টেস্টে জয়ের জন্য দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল মাত্র ১৩৬ রান। হাতে ছিল ১০ উইকেট। এমন একটা টেস্ট জয়ের চিন্তা লঙ্কানরা কেন, বিশ্বের কোনো দলই হয়তো করবে না। কিন্তু ওই যে, পাকিস্তানি জাতীয় দলের ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ তকমা এখনো যায়নি। সেই ‘উপাধি’র মান রক্ষা করতে গিয়ে এই ম্যাচ ২১ রানে হেরে গেল সরফরাজ আহমেদের দল! ১৩৬ রানের জবাবে ১১৪ রানেই থামল স্বাগতিকদের ইনিংস! সৌজন্যে হেরাথ-পেরেরা ঘূর্ণিবল।

আবুধাবি টেস্টের পঞ্চম দিনে ১৩৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৩৬ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা! লঙ্কান স্পিনারদের ঘূর্ণিতে সরফরাজদের এমন অবস্থা হবে তা কি কেউ ভেবেছিল? দলীয় ৪ রানে ফিরে যান সামি আসলাম (২)। প্রথম ইনিংসে ৮৫ রান করা আজহার আলী তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমেও সুবিধা করতে পারেননি। কোনো রান না করেই লাকমলের বলে ক্যাচ দেন তিনি।

৭ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পর বিপর্যয় যেন কাটছিল না স্বাগতিকদের। ৯ রানের ব্যবধানে তৃতীয় উইকেট হিসেবে ওপেনার শান মাসুদ ৭ রান করেই বিদায় হন। আসাদ শফিক এবং বাবর আজম জুটি গড়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু জুটিতে ১৬ রান আসতেই দিলরুয়ান পেরেরার ঘূর্ণিতে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন বাবর (৩)। আর ২০ রান করে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে দলীয় ৩৬ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন আসাদ শফিক।

অভিষিক্ত হারিস সোহেল আর অধিনায়ক সরফরাজ কিছুটা প্রতিরোধ গড়েছিলেন। কিন্তু ১৯ রান করেই রঙ্গনা হেরাথের শিকার হন পাক অধিনায়ক। ইনিংসের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ৩৪ রান করে দিলরুয়ান পেরেরার বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে যান হারিস সোহেল। ৪৩ রানে ৬ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানিদের একাই গুঁড়িয়ে দেন অভিজ্ঞ স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ। এই ম্যাচেই তিনি পূরণ করেছেন টেস্টে ৪০০ উইকেটের মাইলফলক। এছাড়া ৩ উইকেট নেন দিলরুয়ান পেরেরা। বাকী ১টি উইকেট নেন সুরাঙ্গা লাকমল।

Check Also

গার্দিওয়ালার অধীনে আবারও যাবেন মেসি?

নিউজ ডেস্ক  : নির্ঘুম রাত কাটছে মেসি ভক্তদের। ক্লাবের সবচেয়ে বড় তারকা যে আনুষ্ঠানিক জানিয়ে …

%d bloggers like this: