Home / আর্ন্তজাতিক / হানিপ্রীতের পর এবার উধাও বিপাসনা!

হানিপ্রীতের পর এবার উধাও বিপাসনা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: হানিপ্রীতের পর এবার উধাও ডেরার ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারপারসন বিপাসনা! একদিকে ধর্মগুরু রাম রহিমের জেল যাত্রার পর ভারতের পাঁচকুলায় হিংসার জেরে ধরপাকড় অব্যাহত। অন্যদিকে হানিপ্রীতকে না পেয়ে বিপাসনার খোঁজে গিয়েও নিরাশ হয়ে ফিরতে হলো পুলিশকে।

রাম রহিমকে গ্রেপ্তার করার পর তার কয়েক শ কোটি টাকার ডেরা সাম্রাজ্য যেন এখন শ্মশান! হাওয়া হয়ে গিয়েছে ডেরার আভিজাত্য। নেই ভক্তদের ভিড়। তার ওপর গ্রেপ্তার আর পুলিশের ভয়ে ডেরা ছেড়ে পালিয়ে বাঁচার চেষ্টা করছেন অনুগামীরা।

এদিকে লুক আউট নোটিশ জারি করেও গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি রাম রহিমের দত্তক কন্যা হানিপ্রীতকে। এবার ডেরা ছেড়ে চম্পট দিলেন ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারপারসন বিপাসনা। রাম রহিমের পর দ্বিতীয় মুখ হিসেবে নিজেকে কয়েকদিন আগেই দাবি করেছিলেন তিনি। কারণ তিনি ছিলেন ডেরার ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারপারসন। হানিপ্রীতকে পুলিশ খোঁজার পর তিনি আবার দাবি করেন, আশ্রমে কোনো জায়গা নেই বাবাজির পালিত কন্যার।

এবার সিরসায় ডেরা সাচা সৌদার সদর ঘাঁটি থেকে গাঢাকা দিলেন বিপাসনা।

ডেরায় গুরমিত রাম রহিম সিং ও হানিপ্রীত ইনসানের পর অত্যন্ত ক্ষমতাশালী ছিলেন বিপাসনা। তাঁর কাছেও বাবাজির কাজকর্মের গোপন খবর পাওয়া যেত বলে অনুমান পুলিশের। ডেরা অনুগামীদের দাবি, গত শুক্রবার বিপাসনাকে শেষ দেখতে পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু তিনিই এবার বেপাত্তা!

শুধু তাই নয় বাবাজির আরেক ঘনিষ্ঠ ও ডেরার মুখপাত্র আদিত্য ইনসানকেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তিনিও ডেরা ছেড়ে অন্যত্র গাঢাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ।

এদিকে, হরিয়ানা পুলিশের ধরপাকড় অব্যাহত। রাম রহিমের সাজা ঘোষণার পর তাণ্ডব চালানোর অভিযোগে ডেরার কর্তা প্রদীপ গোয়েল ইনসান সহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, প্রদীপের সঙ্গে হানিপ্রীতের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। তাঁর কাছে বাবাজির পালিত কন্যার খবর পাওয়া যেতে পারে বলে ধারণা পুলিশের একাংশের। তবে বিপাসনাকেও পুলিশ খুঁজছে।

এই বিষয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের দাবি, ডেরার গুরুত্বপূর্ণ কাগজ নিয়ে চম্পট দিয়ে থাকতে পারেন বিপাসনা। তাই তিনি কোথায় কোথায় যেতে পারেন এখন সেটাই নতুন করে ভাবাচ্ছে হরিয়ানা পুলিশকে। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

Check Also

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ৯ লাখ ১৩ হাজার

নিউজ ডেস্ক : বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২ কোটি ৮৩ লাখ ২৪ হাজার …

%d bloggers like this: