Home / জাতীয় / সিআরপি পরিদর্শনে ব্রিটিশ এমপি রুশনারা

সিআরপি পরিদর্শনে ব্রিটিশ এমপি রুশনারা

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ লেবার পার্টির এমপি রুশনারা আলী এমপি ঢাকার অদূরে আশুলিয়ায় সিআরপির গণকবাড়ি সেন্টার পরিদর্শন করেছেন। বাংলাদেশ ভ্রমণের অংশ হিসেবে আজ মঙ্গলবার সকালে মার্কস অ্যান্ড স্টার্ট প্রোজেক্টের ট্রেনিং সেন্টার পরিদর্শন করেন তিনি।

পরিদর্শনকালে রুশনারার সঙ্গে  ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাই কমিশনার এলিসন ব্লেক। সিআরপির এ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে তাদের স্বাগত জানান সিআরপির নির্বাহী পরিচালক শফিকুল ইসলাম।

সিআরপির এ প্রশিক্ষণ সেন্টারে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ব্যক্তিরা পোশাক কারখানায় কাজ করার জন্য কম্পিউটারসহ বিভিন্ন প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকে। আবাসিক সুবিধাসহ বিনামূল্যে এ প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকেন তারা।

বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন এসব ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে রুশনারা আলী বলেন, “বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ব্যক্তিরা প্রশিক্ষণ নিয়ে তাদের দক্ষতা ও যোগ্যতা কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখছেন। ” তিনি মার্কস অ্যান্ড স্পেন্সারের সহযোগিতায় মিয়ানমার থেকে আগত শরণার্থী শিবিরে একটি ক্যাম্প স্থাপনের জন্য সিআরপিকে উৎসাহ দেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রতিবন্ধীদের মেধা কাজে লাগিয়ে দক্ষ জনবল হিসেবে তৈরি করার জন্য সাধুবাদ জানান। এ ধরনের পিছিয়ে পড়া মানুষদের উৎসাহ জোগাতে এগিয়ে আসা বিভিন্ন তৈরি পোশাক কারখানার প্রশংসা করেন ও অন্যদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, “সিআরপি একটি সেবামূলক সংস্থা।

সাভারে রানা প্লাজা ট্র্যাজেডির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “রানা প্লাজার ওই ঘটনায় বেঁচে যাওয়া এক শ্রমিকের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। তিনি মনে করেন, ওটা কোনো দুর্ঘটনা ছিল না। ওটাকে প্রতিরোধ করা সম্ভব ছিল। রানা প্লাজা ধসের পর শ্রমিকদের জন্য বিভিন্ন তৈরি পোশাক কারখানার পরিবেশ উন্নয়নে সরকারের নেওয়া নানা পদক্ষেপে তিনি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার এলিসন ব্লেক মার্কস অ্যান্ড স্টার্ট প্রোজেক্টের সহায়তায় পরিচালিত ট্রেনিংয়ের প্রশংসা করে বলেন, “আমি ইতিপূর্বে সিআরপি পরিদর্শন করেছি। আমি তাদের কার্যক্রম দেখে অনেক খুশি। আমাদের যুক্তরাজ্য সিআরপিকে সহায়তা করছে। ”

এর আগে এ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে হাতে-কলমে কার্যকর প্রশিক্ষণ নিয়ে বিভিন্ন কারখানায় কর্মরত ফাতেমা বেগম ও রেজাউল ইসলাম রেজা তাদের প্রশিক্ষণ থেকে শুরু করে কর্মস্থলে যোগদান করা পর্যন্ত তাদের জীবনের সাফল্য ও অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনা করেন। এ ছাড়া সিআরপির মাউথ পেইন্টার আলামিন শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে রুশনারা আলীকে তার আঁকা একটি ছবি উপহার দেন। পরে রুশনারা আলী ও হাইকমিশনার সিআরপিতে দুটি পাহাড়ি কাঞ্চন ফুলের গাছের চারা রোপণ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন মার্কস অ্যান্ড স্পেন্সারের কান্ট্রি ম্যানেজার স্বপ্না ভৌমিক, ইন্টারসফ্ট অ্যাপারেন্সের পরিচালক নাইমুল বাশার চৌধুরীসহ বিভিন্ন তৈরি পোশাক কারখানার কর্মকর্তারা।

সিআরপির নির্বাহী পরিচালক শফিকুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, মার্কস অ্যান্ড স্টার্ট বাংলাদেশে মার্কস অ্যান্ড স্পেন্সারের একটি সামাজিক প্রকল্প। সিআরপি ২০০৬ সাল থেকে এই প্রজেক্টের বাস্তবায়নকারী সংস্থা হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। এ পর্যন্ত এক হাজার ৬০০ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণ শেষে ৭০টিরও বেশি কারখানায় কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে।

এই লক্ষ্যে মার্কস অ্যান্ড স্পেন্সার মার্কস অ্যান্ড স্টার্ট প্রজেক্টের অধীনে সিআরপি-গণকবাড়িতে দুটি প্রশিক্ষণ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেছে। যেখানে সুইং, লিংকিং এবং কম্পিউটারসহ তিনটি ভিন্ন ভিন্ন প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। আবাসিক সুবিধাসহ প্রশিক্ষণের সব খরচ মার্কস অ্যান্ড স্টার্ট প্রজেক্ট বহন করে।

Check Also

রাতে জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) …

%d bloggers like this: