Home / বিনোদন / চলচ্চিত্র / সব শ্রেনীর দর্শকদের ছবি “গেইম রিটার্নস”: মিশা

সব শ্রেনীর দর্শকদের ছবি “গেইম রিটার্নস”: মিশা

হাসান মুরসালিন: আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকার অভিসার সিনেমা হলে দর্শকদের সাথে একসাথে “গেইম রিটার্নস” সিনেমাটি দেখলেন জনপ্রিয় পরিচালক দেবাশিস, অভিনেতা মিশা সওদাগর ও নিরব। “গেইম রিটার্নস” অভিনেতা নিরব ছবি শেষে হল থেকে বেড়িয়ে অনলাইন দর্শকদের সাথে কথা বলতে লাইভে আসেন। এমন সময় জনপ্রিয় অভিনেতা মিশা নিরবের ফেইসবুক লাইভে দর্শকদের উদ্দেশ্যে কিছু কথা বলেন। দর্শকদের উদ্দেশ্যে মিশা কথাগুলো হুবাহু তুলে ধরা হলো।

আসসালামু আলাইকুম, আসলে সবচেয়ে কঠিন হচ্ছে একটা কর্মাশিয়াল ছবি বানিয়ে সেটাকে চালিয়ে যাওয়া, সবচেয়ে কঠিন। আপনি ইচ্ছে করলে একটা ফেস্টিবলে জন্য ছবি বানান, আপনি ইচ্ছা করলে একটা পুরুস্কারের জন্য চেস্টা করলে পেয়ে যাবেন। কিন্তু আপনি ইচ্ছা করে আড়াই তিন ঘন্টার ছবি বানাবেন, সেখানে গান-নাচ-ফাইট এবং সিকুয়েন্স গুলো যাতে দর্শক এবং সমস্ত ধরনের ডিসি থেকে আরম্ভ করে রিয়েল স্টপ, ফাস্ট ক্লাস, সেকেন্ড ক্লাস, থার্ড ক্লাস এসব সমস্ত দর্শককে একত্রিত করাই সবচাইতে সবচাইতে কঠিন কাজ।

পৃথিবীতে সবচাইতে কঠিন কাজের একটি কাজ হচ্ছে একজন পরিচালক। কর্মাশিয়াল ছবিকে বানিয়ে সেটিকে চালিয়ে দিবে, এবং তা সর্ব শ্রেনীর মানুষ পছন্দ করবে। তেমনি একটা ছবি দেখলাম চেস্টা ছিলো। এখানে দুজনের নাম বলতে হয়, একজন হলো রয়েল এ ছবির ডিরেক্টর আরেকজন হচ্ছেন আমাদের নিরব। নিরব ছোট ভাই হিসেবে আমি যতটুকু বলেছি, যে নিরব তুমি; নিরব সবসময় চিক উপরে রেখে হাসেঁ। আমি বলেছিলাম তুমি হাসবানা, তুমি চিকটা ফেলে দাও। কারন তুমি হচ্ছো প্রোফেশনাল একজন মার্ডারার। তো তোমাকে সব সময় বোঝা যাবে যে তুমি অনেক কিছু বোঝ। তো এ জায়গা থেকে নিরব সেটা শুনেছে, এবং নিরব অনেক অনেক ভালো করেছে। আমি বিশ্বাস করি, স্পেসালি নিরবের এ ছবিতে ডাবিং চমৎকার চমৎকার। গানের ড্রেসগুলো তো চিন্তাই করা যায়নি। এমনিতেও ও মডেল খুব সুন্দর মডেল। এবং যথেস্ট দক্ষতার সাথে ও এ্যাকশন কাজগুলো করছে। ওর একটু উইক ছিলো এ্যাকশনে, কিন্তু এ ছবিতে আমি দেখলাম ও অনেক চেস্টা করেছে ভালো করার জন্য। এবং দর্শক যথেস্ট আনন্দ পায়।

আমরা এরকমি চাই, এ ছবিতে হয়তোবা ওরকম বাজেটও ছিলো না। মোটামুটি ঘরানার বাজেট ছিলো। আমি আবার বললাম রয়েলের দু তিনটা ছবি আমি কাজ করেছি, এ ছবিতে রয়েল উতরে গেছে। নিরব মাইন্ড ব্লোইং। আরেকজনের কথা বলতেই হয়, সে হচ্ছে তমা ভালো করার চেস্টা করেছে এবং বেশ ভালো করেছে সে হচ্ছে লাবণ্য। লাবণ্যকে দেখে মনে হচ্ছে এনজোলিনা, ছোট মোটো এনজোলিনা জোলি। তো সব মিলেয়ে আমি মনে করি সব ধরনের ছবি হোক।

কিছু ছবি পুরস্কারের জন্য হবে, কিছু ছবি সিনেপ্লেক্সের জন্য হবে। কিন্ত সর্বপরি সাধারন মানুষের জন্য ছবি যদি হয়, এবং আমরা যারা সচ্ছল লোক বিনোদনের জন্য ফ্লিম ছাড়াও অনেক কিছু পেয়ে থাকি। সাধারন মানুষের কথা মনে রেখে আমার মনে হয় তাদের জন্য ছবি বানানো উচিত। ডায়লগ তৈরি করা উচিত, গান বানানো উচিত। কারন ওনাদের তো আমাদের মতো বিভিন্ন জায়গা নেই যে তারা আনন্দকে ভোগ করে নেবে বা ভাগ করে নেবে। কেবল মাত্রা ছবি দেখে ও গান শোনে। আমি আশা করবো যাতে এই ধরনের যারা দর্শক আছে তারা এসে দেখে, আপনারা মজা পাবেন। মানে অন্তত সবচেয়ে মজা করবেন নতুন একটা নিরবে দেখবেন। নিরবের জন্য অনেক শুভ কামনা, থ্যাংক ইউ ভেরি মাচ।

Check Also

তামাকের বিরুদ্ধে “সিগারেট”

নাসিফ শুভ: স্লো পয়জন হিসেবে সিগারেট সারা বিশ্বব্যাপী পরিচিত। ধূমপানে একদিকে যেমন নিজের ক্ষতি হয়, …

%d bloggers like this: