Home / দেশজুড়ে / রৌমারীতে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতির দায়ে শিক্ষক গ্রেপ্তার

রৌমারীতে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতির দায়ে শিক্ষক গ্রেপ্তার

ডেস্ক:  কুড়িগ্রামের রৌমারীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি বিকৃতি করে ইন্টারনেট ফেসবুকে পোস্ট করার অপরাধে আনিছুর রহমান নামের এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রৌমারী থানা পুলিশ আজ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার কর্তিমারী বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।
শিক্ষকতার পাশাপাশি আনিছুর সাংবাদিকতা করে বলেও জানা গেছে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি করে ফেসবুকে দেয়ার প্রমাণসহ গত ৮ অক্টোবর রৌমারী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে শাহ কামাল নামের স্থানীয় এক যুবলীগ নেতা। অভিযোগ পাওয়ার পর তা তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলার অনুমতি চেয়ে আবেদন পাঠানো হয় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বরাবর। অনুমতি পাওয়ার পর মামলার রেকর্ড করে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে একই অভিযোগে অপর অভিযুক্ত সুমন মিয়াকে এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ধনারচর হাটখোলাপাড়া গ্রামের আব্দুল্লাহ হক’র পুত্র সুমন মিয়া (২৫) এবং কর্তিমারী গ্রামের ইস্রাফিল হক ওরফে ডেফার পুত্র আনিছুর রহমান দু’জনে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি করে। আনিছুর রহমানের দোকান ঘরে তার নিজস্ব কম্পিউটারে ওই ছবি বিকৃতি করা হয় বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি করে ফেসবুকে পোস্ট করার অভিযোগটি রৌমারী থানায় দায়ের করেন উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের ধনারচর ৫নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ কামাল। এ বিষয়ে যাদুরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।
যাদুরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান জানান, প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতির বিষয়টি দলের বর্ধিত সভায়ও আলোচনায় ওঠে।

আনিছুর রহমান রাজীবপুর উপজেলার কোদালকাটি মন্ডলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। সরকারি চাকরি করেও তিনি সাংবাদিকতা করেন। দৈনিক সংবাদ পত্রিকার রৌমারী প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন। তবে অভিযুক্ত শিক্ষক অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এদিকে রাজীবপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা স্বপন কুমার সূত্রধর জানান, ওই শিক্ষক সময় মতো স্কুলে উপস্থিত হন না। ছুটি না নিয়ে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকেন। এ কারণে তাকে শোকজ করা হয়েছে কিন্তু নির্ধারিত সময় অতিবাহিত হলেও শোকজের জবাব দেননি। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে আবেদন পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (রৌমারী সার্কেল) সিরাজুল ইসলাম জানান, প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি করে ফেসবুকে পোস্ট করার তথ্য প্রমাণ পাওয়ার পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Check Also

এই সৌদি প্রবাসীদের কী হবে?

নিউজ ডেস্ক  : সৌদি আরবে নতুন করে বাংলাদেশ বিমানের ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না মেলায় জটিলতা কাটছে …

%d bloggers like this: