Home / দেশজুড়ে / মেলান্দহে প্রতিবন্ধীর পায়ে শিকল

মেলান্দহে প্রতিবন্ধীর পায়ে শিকল

দেশজুড়ে ডেস্ক: জামালপুরের মেলান্দহে প্রায় ছয় মাস ধরে পায়ে শিকল পড়িয়ে গাছের সাথে বেঁধে রাখা হয়েছে সোহেল (২২) নামের এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী যুবককে। সে মেলান্দহ পৌরসভার আদিপৈত গোয়ালপাড়া গ্রামের দিনমজুর আক্কাস আলীর পুত্র।

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, মেলান্দহের আদিপৈত গোয়ালপাড়া গ্রামের দিনমজুর আক্কাস আলীর বাড়ির পাশ দিয়ে চলে গেছে একটি পাকা সড়ক। ওই সড়কে বাইক চালিয়ে যেতেই চোখে পড়ে একটি যুবক সড়কটির ধারে মাটিতে বসে আকাশ পানে ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে আছে। যুবকটির প্রতি ভালভাবে লক্ষ করতেই চোখে পড়ে তার পায়ে শিকল পড়ানো। তখনই বাইক থেকে নেমে দেখি যুবকটির পায়ের শিকল একটি কাঠাল গাছের সাথে তালা লাগিয়ে রাখা হয়েছে। পরে জানতে পারি যুবকটি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। তার নাম সোহেল। বয়স ২২ বছর পেরিয়েছে। সে মাটিতে বসে সারাদিন আকাশ পানে ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে থাকে। তার বাবা দিনমজুর আক্কাস আলী মেলান্দহের একটি কাঠ কাটার মিলে কাজ করেন।

তার মা গৃহিনী। আক্কাস আলীর তিন কন্যা ও দুই পুত্র। তন্মধ্যে বড় সন্তানই বুদ্ধি প্রতিবন্ধি সোহেল।দিনমজুর আক্কাস আলীর স্ত্রী সুফিয়া বেগম জানান, সোহেল ছোট বেলা থেকেই বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। অর্থের অভাবে সোহেলকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করাতে পারিনি। সে মাঝে মধ্যেই সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে অন্যত্র পালিয়ে যায়। একে একে চারবার বাড়ি থেকে হারিয়েছে। সোহেল চতুর্থ বার হারিয়ে প্রায় তিন মাস নিখোঁজ ছিল। শেষবার অনেক খোঁজে তাকে বাড়িতে আনা হয়েছে। আজ থেকে ছয়মাস ধরে শিকলে বেঁধে রাখা হয়েছে।

আক্কাস আলীর অভিযোগ, প্রতিবন্ধী পুত্রসহ পরিবারের ৭জন মানুষের ভরণ পোষণ তার পক্ষে কষ্টসাধ্য হলেও কেউ তাকে সহযোগিতা করেনি। প্রতিবন্ধী ছেলেটির জন্যও আজ পর্যন্ত প্রতিবন্ধী ভাতাসহ সরকারি কোন প্রকার সুযোগ সুবিধা পায়নি।

স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মিনাল জানান, প্রতিবন্ধী সোহেলকে শিকলে বেঁধে রাখার কথা জেনে আজই সেখানে গিয়ে তার পায়ের শিকল খুলে দিয়েছি।

মেলান্দহ পৌর মেয়র শফিক জাহেদী রবিন জানান, প্রতিবন্ধী সোহেলকে শিকলে বেঁধে রাখার খবর আগে কেউ কখনো জানায় নি। আজই বিষয়টি জেনেছি। তবে তাকে প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Check Also

এই সৌদি প্রবাসীদের কী হবে?

নিউজ ডেস্ক  : সৌদি আরবে নতুন করে বাংলাদেশ বিমানের ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না মেলায় জটিলতা কাটছে …

%d bloggers like this: