Home / দেশজুড়ে / চট্টগ্রাম / মিয়ানমার সীমান্তে আরও ৪ রোহিঙ্গার মৃতদেহ উদ্ধার

মিয়ানমার সীমান্তে আরও ৪ রোহিঙ্গার মৃতদেহ উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক: কক্সবাজার ও বান্দরবানের সীমান্ত এলাকা থেকে আরও চারজন রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে এক দম্পতিও রয়েছে।  লাশগুলো স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার নাফ নদীর হোয়াইক্যং পয়েন্ট থেকে পুলিশ এবং বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্ত থেকে বিজিবি শনিবার গভীর রাতে লাশগুলো উদ্ধার করে।  এ নিয়ে গত তিন দিনে ৫৪ জন রোহিঙ্গার মৃতদেহ উদ্ধার হলো।

বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মনজুরুল হাসান খান বলেন, শনিবার গভীর রাতে বান্দরবানের ঘুমধুম ইউনিয়নের জলপাইতলী পয়েন্টে শূন্যরেখার বাংলাদেশের অভ্যন্তরে দুটি গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা বিজিবিকে খবর দেয়। পরে বিজিবি গিয়ে তা উদ্ধার করে।

উদ্ধারকৃত লাশগুলো সীমান্তের জলপাইতলীতে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মৃতরা মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের আকিয়াব জেলার মংডু থানার ঢেঁকিবুনিয়া এলাকার মো.জাফরুল্লাহ ও তার স্ত্রী আয়েশা বেগম বলে ওই এলাকা থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা আবুল হোসেন জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে সহায় সম্পদ ফেলে গত দুই দিন আগে ঘুমধুম সীমান্ত পেরিয়ে জাফরুল্লাহসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে।  শনিবার তারা ফেলে আসা সহায়-সম্পদ আনতে ঘুমধুমের জলপাইতলী সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমার যান।

তারা ঢেঁকিবুনিয়ায় পৌঁছার পর মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও পুলিশ তাদের গুলি করে।  গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তারা বাংলাদেশের দিকে রওনা দেন। এক পর্যায়ে ঘুমধুমের জিরো পয়েন্টের কাছাকাছি এলাকায় মিয়ানমার অভ্যন্তরে তাদের মৃত্যু হয়। ‘

এদিকে নাফ নদীর থেকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা লাশগুলো দুই রোহিঙ্গা নারীর বলে টেকনাফ থানার ওসি মো.মাইনুদ্দিন খান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘রাতে স্থানীয়রা লাশগুলো দেখে খানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে সেগুলো উদ্ধার করে। লাশে সামান্য পচন ধরেছে। নিহতদের পরনে স্থানীয় বার্মিজ পোশাক ছিল।’

Check Also

এই সৌদি প্রবাসীদের কী হবে?

নিউজ ডেস্ক  : সৌদি আরবে নতুন করে বাংলাদেশ বিমানের ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না মেলায় জটিলতা কাটছে …

%d bloggers like this: