Home / আর্ন্তজাতিক / মার্কিন সিনেটরের ক্যামেরার সামনেই নারীকে যৌন হেনস্তা

মার্কিন সিনেটরের ক্যামেরার সামনেই নারীকে যৌন হেনস্তা

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :  লিয়ান টুইডেন নামের এক নারী ক্যামেরা চালু থাকা অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর অ্যাল ফ্র্যাঙ্কেন আপত্তিকর স্পর্শ করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন। ২০০৬ সালের ডিসেম্বরে এ ঘটনা ঘটে। বিবিসির খবরে বলা হয়, ২০০৬ সালের ডিসেম্বরে কুয়েতে অবস্থানরত মার্কিন সেনাদের মনোরঞ্জনের জন্য কৌতুক অভিনয়ের আয়োজন করা হয়। সেখানে অভিনেতা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফ্র্যাঙ্কেন ও লিয়ান।

ওই নারীর অভিযোগ, মহড়ার সময় অভিনয়ের ছলে একসময়কার কৌতুক অভিনেতা ফ্র্যাঙ্কেন জোর করে তাঁকে চুমু খান। এ ছাড়া ফ্রাঙ্কেন ঘুমন্ত অবস্থায় তাঁর শরীরে আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। শরীরে জোরপূর্বক স্পর্শের একটি ছবিও প্রকাশ করেছেন এই নারী। এতে ফ্র্যাঙ্কেনকে হাস্যোজ্জ্বল অবস্থায় ওই নারীর শরীর স্পর্শ করতে দেখা যায়। লিয়ান বর্তমানে ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের লস অ্যাঞ্জেলেস শহরে কেএবিসি নামের একটি রেডিও চ্যানেলে কাজ করেন। সেখানে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘অভিনয়ের স্ক্রিপ্ট হাতে পাওয়ার পর দেখি, একটি দৃশ্যে ফ্র্যাঙ্কেন আমাকে চুমু খাবেন বলে লেখা আছে। তিনি নিজেই স্ক্রিপ্টের ওই অংশটুকু লিখেছিলেন।’

‘আমি বুঝতে পারি, তিনি কী চাইছেন। তাই আমি ঠিক করি, শেষ মুহূর্তে এসে আমার মুখ সরিয়ে নেব অথবা হাত দিয়ে তাঁর মুখ চাপা দেবো। এতে দর্শকরা আরো মজা পাবে। কিন্তু অভিনয়ের ওই সময় ফ্র্যাঙ্কেন মাথার পেছনে হাত রেখে জোর করে আমাকে চুমু খায়।’ ফ্র্যাঙ্কেনের উদ্দেশে লিয়ান বলেন, ‘আপনি জানতেন, আপনি কী করছেন। আপনি আমাকে জোর করে চুমু খেয়েছেন। আমি যখন ঘুমাচ্ছিলাম, তখন আমার বুকে হাত দিয়েছেন। একজন এটা ভেবে ছবিও তুলেছিল যে আমি পরে ছবিটি দেখে বিব্রত হব।’

লিয়ানের এ অভিযোগের পর ক্ষমা চেয়েছেন সিনেটর ফ্র্যাঙ্কেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমার ওই দিনের মহড়ার কথা মনে নেই। তবে আমি লিয়ানের কাছে ক্ষমা চাইছি।  আরো বলেন সাবেক  অভিনেতা ছবিটি দেখে মনে হয় এটা মজা ছিল, কিন্তু মোটেও তা নয়। আমার এমন কিছু করা উচিত হয়নি।’

Check Also

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ৯ লাখ ১৩ হাজার

নিউজ ডেস্ক : বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২ কোটি ৮৩ লাখ ২৪ হাজার …

%d bloggers like this: