Home / দেশজুড়ে / ঢাকা / মাদারীপুরের ১৩,৫৫২টি কুকুরকে জলাতঙ্কের টিকাপ্রদান

মাদারীপুরের ১৩,৫৫২টি কুকুরকে জলাতঙ্কের টিকাপ্রদান

মাদারীপুর প্রতিনিধি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার উদ্যোগে জাতীয় জলাতঙ্ক নির্মূল কর্মসূচির অংশ হিসাবে কুকুরে কামরের আধুনিক চিকিৎসার পাশাপাশি সারাদেশে ব্যাপক হারে কুকুরের জলাতঙ্ক প্রতিষোধক টিকাদান কর্মসূচি অব্যাহত রযেছে। তারই ধারাবাহিকতায় সমগ্র মাদারীপুর জেলার সকল উপজেলায় জলাতঙ্ক প্রতিরোধে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচি ১৭ মার্চ শেষ হয়েছে। ১৩ মার্চ হতে শুরু হওয়া ৫ দিন ব্যাপী এ কর্মসূচিতে মাদারীপুর সদর, শিবচর, কালকিনি ও রাজৈর উপজেলার পৌরসভা ও সকল ইউনিয়নে দেখতে পাওয়া ১৬,৪৯৯টি কুকুরের মধ্যে ১১,৫৩০টি কুকুরকে জলাতঙ্ক প্রতিরোধক টিকাপ্রদান করা হয়। যা শতকরা ৮২ ভাগ কুকুরকে টিকা প্রদান করা হয়।

ব্যাপকহারে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচি সম্পর্কে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার, এমডিভি এক্সপার্ট ডাঃ মোঃ কামরুল ইসলাম বলেন, একটি নির্দিষ্ট এলাকায় শতকরা ৭০ভাগ কুকুরকে প্রতিবছর পরপর ৩ বার জলাতঙ্ক প্রতিষোধক টিকাপ্রদান করা হলে ঐ এলাকার কুকুর গুলোতে জলাতঙ্কের বিরুদ্ধে হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হবে। ফলে কুকুরের কামড়ে মানুষের জলাতঙ্ক রোগ হওয়ার প্রবণতা শুন্যের কোঠায় চলে আসবে। তিনি আরো বলেন বাংলাদেশ সরকারের লক্ষ হিসাবে ২০২২ সালের মধ্যে দেশের সকল জেলায় পরপর তিনবার কুকুর টিকাদান করা সম্ভব হলে বাংলাদেশ হতে জলাতঙ্ক নামক মরণব্যাধি নির্মূল করা সম্ভব। তিনি আরো বলেন, উপজেলাবাসীর সকলের আন্তরিক সহযোগিতার কারনে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচি সফলভাবে শেষ করা সম্ভব হয়েছে। আর কুকুরকে জলাতঙ্কের বিরুদ্ধে টিকা দেয়ার ফলে উপজেলাবাসীর নিকট কুকুর আর বিরক্তির কারন হবে না।

এছাড়াও সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ইকরাম হোসেন বলেন, মাদারীপুর জেলার সকল উপজেলার স্বাস্থ্য, প্রাণি সম্পদ, স্থানীয় সরকার বিভাগ ও প্রশাসনের সহায়তায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগ নিয়ন্ত্রন শাখা হতে আগত এমডিভি এক্সপার্ট ও সুপারভাইজারবৃন্দ সহ উপজেলার সকল এইচআই এবং এএইচআইদের প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে কর্মসূচিতে নিয়োজিত সকলের আন্তরিকতায় সমগ্র মাদারীপুর জেলায় জলাতঙ্ক প্রতিরোধে ব্যাপক হারে কুকুরের টিকাদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। সমগ্র মাদারীপুরবাসীর সার্বিক সহায়তা পাওয়ায় কর্মসূচি সফলভাবে সমাপ্ত হওয়ায় সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তিনি আশা করেন মাদারীপুর জেলার ন্যায় পরবর্তীতে অন্যান্য জেলায় এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকলে সকলে মিলে কর্মসূচি সফল করে জলাতঙ্ক মুক্ত দেশ গড়তে সহজ হবে।

Check Also

হিলিতে গরু মোটাতাজাকরণ ট্যাবলেটসহ প্রসাধনী সামগ্রী উদ্ধার

দেশজুড়ে ডেস্ক : দিনাজপুরের হিলি সীমান্তের সাতকুড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ভারত থেকে চোরাইপথে দেশে আনা …