Home / আর্ন্তজাতিক / ভারতকে ফের আলোচনার প্রস্তাব ইমরানের

ভারতকে ফের আলোচনার প্রস্তাব ইমরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: উত্তেজনার মধ্যেই ভারতকে ফের আলোচনায় বসার প্রস্তাব দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

তিনি বলেন, “আমি আরো একবার ভারতকে আলোচনার টেবিলে আসার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।” পারমাণবিক শক্তিধর দুদেশের মধ্যে এমন সংঘাত চলতে থাকলে বিপর্যয় ঘনিয়ে আসবে বলে তিনি সতর্ক করে দেন।

বুধবার পাকিস্তানের সরকারি বেতারে জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে ইমরান বলেন, “আমরা যে পদক্ষেপ নিয়েছি তার একমাত্র উদ্দেশ্য হচ্ছে এটাই জানান দেওয়া যে, ভারত যদি এখানে আসতে পারে, তবে আমরাও তাদের ওখানে যেতে পারব। সব যুদ্ধেই হিসাবে ভুল হয়। কেউ জানে না তারা কোথায় যাচ্ছে।”

কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলাকে কেন্দ্র করে সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানের পাল্টাপাল্টি আক্রমণে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ পরিস্থিতিতেই ইমরান খান ভারতকে আলোচনার এ প্রস্তাব দিলেন। এর আগেও ইমরান খান ভারতকে ‘শান্তির সুযোগ’ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

ইমরান খান বলেন, “আমি ভারতকে যা বলতে চাই তা হল: বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের বিবেচনা বোধ ও বিচারবুদ্ধির প্রয়োগ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।” যে হিসাব করে যুদ্ধে নামা হয়, যুদ্ধের গতিপ্রকৃতি সেদিকে গড়ায় না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ইমরান বলেন, “হিটলার কখনো ভাবতে পারেননি দীর্ঘ যুদ্ধে বিপর্যয়ের কথা। আমেরিকানরা কল্পনাও করেনি ভিয়েতনাম যুদ্ধে তাদের ব্যর্থতা কিংবা আফগানিস্তানে যুদ্ধের বিস্তৃতি দশক ছাড়িয়ে যাওয়ার কথা। কোনো যুদ্ধেই সব অঙ্ক মেলে না। ভারতকে আমার প্রশ্ন হচ্ছে, আমাদের দুইপক্ষের হাতেই যে ধরনের অস্ত্র আছে, তাতে কী আমরা এরকম কোনো ভুল হিসাবের ঝুঁকি নিতে পারব? যদি আমরা এটা (যুদ্ধ) ঘটতে দেই তবে পরিস্থিতি আর আমার বা নরেন্দ্র মোদীর নিয়ন্ত্রণে থাকবে না।”

“পুলওয়ামায় আপনাদের (ভারত) যে কষ্ট পেতে হয়েছে আমরা তার বেদনা আঁচ করতে পারছি। ওই ঘটনা নিয়ে তদন্ত এবং আলোচনার জন্য আমরা পস্তুত। আসুন একসঙ্গে বসে আলোচনার মাধ্যমে এ সংকটের সমাধান করি।”

সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানের পাল্টাপাল্টি আক্রমণের মধ্যে বুধবার পাকিস্তান দুইটি ভারতীয় যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার এবং একজন বৈমানিককে ‘আটক’ করার দাবি করেছে। অন্যদিকে দিল্লি থেকে পাকিস্তানের একটি জঙ্গিবিমান ভূপাতিত করার এবং নিজেদের একটি মিগ-২১এস ধ্বংস হওয়ার কথা জানানো হয়েছে বলে জানায় বিবিসি।

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা তদন্তে ভারতকে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছিলেন জানিয়ে ইমরান আরো বলেন, “আমরা ভারতকে তদন্তের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। আমরা সহযোগিতা করতে চেয়েছিলাম এবং এখনও তা করতে প্রস্তুত আছি। আমার আশঙ্কা ভারত হয়তো আক্রমণ করতে চাইছে, সেক্ষেত্রে আমি ভারতকে যেকোনো আক্রমণের বিষয়ে সতর্ক করছি।”

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় ৪০ জনের বেশি সেনা নিহতের প্রতিশোধ নিতে মঙ্গলবার ভোররাতে পাকিস্তানের বালাকোটে জইশ-ই-মোহাম্মদের ঘাঁটিতে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বিমানবাহিনী।

এ বিষয়ে ইমরান বলেন, “গতকাল ভোরে ভারত যখন বালাকোটে অভিযান চালায় তখন আমরা আমাদের সেনাবাহিনীর সঙ্গে আলোচনা করেছি এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য অপেক্ষা করেছি। আমরা এখনো ক্ষয়ক্ষতির হিসাব করছি।”

Check Also

রাশিয়ার সঙ্গে ট্রাম্পের যোগসাজশ ছিল না: ম্যুলারের তদন্ত প্রতিবেদন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়ার সঙ্গে দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কোনো যোগসাজশ ছিল না বলে …