Home / বিনোদন / চলচ্চিত্র / ‘বিয়ের আগে সন্তানধারণ না করলেই পারতাম’

‘বিয়ের আগে সন্তানধারণ না করলেই পারতাম’

নিউজ ডেস্কঃ ‘শুরুতে বিবাহিত পুরুষরা আপনার সামনে এমন ভাব করবেন যে, তারা তাদের স্ত্রীকে আর মোটেই ভালোবাসেন না। বিবাহিত সম্পর্ক থেকে তারা যেন বেরিয়ে আসতে চাইছেন। এসব দেখে আপনিও তার প্রেমে পড়লেন। তার সঙ্গে ছুটি কাটাতে গেলেন। এ পর্যন্ত ঠিক ছিল! কিন্তু বিয়ে করতে চাইলে? তখন আপনাকে তার নানা অজুহাত শুনতে হবে। দীর্ঘ এ অজুহাতের তালিকায় কখনো বাচ্চা, কখনো সম্পত্তি ইত্যাদি। আর আপনি তখন বুঝে উঠতে পারবেন না ঠিক কী করা উচিত? তারপর আপনার প্যানিক শুরু হবে। পরিস্থিতি বিগড়ে যাবে। আর আপনার পার্টনার সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে যেতে চাইবে। এজন্য বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়াবেন না।’—এক ভিডিও বার্তায় এসব কথা বলেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী নীনা গুপ্তা।

হঠাৎ কী এমন হলো যে, ভিডিও বার্তায় এসব কথা বলছেন নীনা? এ প্রশ্নের উত্তর জানা যায়নি। তবে ব্যস্ততাকে পেছনে ফেলে উত্তরাখণ্ডের মুক্তেশ্বরে ছুটি কাটাচ্ছেন অভিনেত্রী নীনা। আর অবসর যাপনের এক ফাঁকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ ভিডিও শেয়ার করেন তিনি।

আশির দশকে ভিভ রিচার্ডসের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান নীনা। ভিভ তখন বিবাহিত। দুই সন্তানের বাবা। সম্পর্কের শুরুর দিকে নিয়মিত ভারতে যাতায়াত ছিল ভিভের। কিন্তু সে সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়নি। ১৯৮৯ সালে নীনা গুপ্তা এক কন্যা সন্তান জন্ম দেন। ভিভ এ মেয়ের বাবা। মেয়েকে দেখতে ভারতে এসেছিলেন ভিভ। এরপর নীনা-ভিভের সম্পর্কে ভাঙন ধরে। এদিকে মেয়ে মাসাবাকে ‘সিঙ্গেল মাদার’ হিসেবে বড় করেছেন নীনা।

বিবাহবহির্ভূত সন্তানধারণের সিদ্ধান্ত নিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন ৬০ বছর বয়েসি নীনা। তার ভাষায়—‘বিয়ের আগে সন্তানধারণ না করলেই পারতাম। প্রত্যেক সন্তানের বাবা-মা দুজনকেই প্রয়োজন।’

 

Check Also

মায়ের মৃত্যুর একদিন পরই শুটিংয়ে মল্লিক

বিনোদন ডেস্ক : সবাইকে হাসাতেই পর্দায় আসতেন তিনি। সেই কাঞ্চন মল্লিকের মায়ের মৃত্যুর পর পেশাদারিত্বের …

%d bloggers like this: