Home / ঘুরে দেখা / বান্দরবানে পাথুরে সভ্যতার নাইখ্যং খুম

বান্দরবানে পাথুরে সভ্যতার নাইখ্যং খুম

মোঃ জাহেদ রাজু : খুম গুলির প্রকৃত সৌন্দর্য প্রকৃতি বর্ষার পরেই মেলে ধরে। যত দিন যায় বর্ষার সেই কাদামাখা বালি পলি জল পাথর যেন বিরামহীন কর্ম ব্যস্ততায় শোষিত নীতিতে নিজেকে বিকশিত করে আর ছুঁড়ে ফেলে জীবাশ্ম জ্বালানি ও স্বচ্ছ জল। উজান থেকে ভাটির দিকে পাথরের আঁকে বাঁকে এই খেলা চলে বিরামহীন। গড়ে তুলে এক স্বচ্ছ জলের চলমান ধারা যা এসে স্থির হয় খুমে। স্থিরতা বজায় রাখে উপরি ভাগে কিন্তু খুমের তলদেশে চলে অস্থিরতার স্রোত। পাহাড় পাথর আর জলের এই চক্র নিয়েই পাথুরে সভ্যতা।

এই খুম গুলির নিন্ম ভাগে থুইসা পাড়া জিন্না পাড়া অতিরাম পাড়ার লোক জন মাছ আহরণ করে আর উপরি ভাগে বুলুং পাড়া দতং পাড়া থান্দুই পাড়ার লোক জন মাছ আহরণ করে।কারণ যথন পানি বেশি থাকে তখন নাইখ্যং মুখের বড় পাথরের ফাঁক অতিক্রম করে উজানে উঠা এক রকম অসম্ভব। তথ্য সূত্রেঃ থুইসা খিয়াং এর ছেলে শইশা খিয়াং।

যেভাবে যাবেন

দশ বারো জনে গ্রুপ হলে ভাল। যেখান থেকেই যান ভোরে বান্দরবান নেমে জিপ রিজার্ভ নিয়ে বা সকাল আটটার বাসে থানচি পৌছে, গাইড পারমিশান নিয়ে বোটে পদ্ম মুখ হয়ে হেঁটে থুইসা পাড়া। ওখানে রাতে থেকে পর দিন ভোরে দেবতা পাহাড় হয়ে বা অতিরাম পাড়া হয়ে আমিয়াখুম এর উজানের দিকে এগুলোই নাইখ্যং খুম পাবেন। ফেরার পথে চাইলে জিন্না পাড়া ওলাওয়া পাড়া নাফাখুম রেমাক্রি হয়ে বোটে রাজা পাথর বড় পাথর তিন্দু হয়ে থানচি আসতে পারেন।

লেখক: মোঃ জাহেদ রাজু

ভ্রমন বিষয়ক আরো নিউজ পড়তে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন…

এখনি সময়, ঘুরে আসুন শান্তির দেশ ভুটান হতে (ভিডিও সহ)

Check Also

এই সৌদি প্রবাসীদের কী হবে?

নিউজ ডেস্ক  : সৌদি আরবে নতুন করে বাংলাদেশ বিমানের ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না মেলায় জটিলতা কাটছে …

%d bloggers like this: