Home / দেশজুড়ে / ফরিদপুর ভুমি অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে অনৈতিক লেনদেনের অভিযোগ

ফরিদপুর ভুমি অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে অনৈতিক লেনদেনের অভিযোগ

মোঃ ফজলুল হক: পাবনা ফরিদপুর ভুমি অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে অনৈতিক লেনদেনের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায় পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলার হাদল ইউনিয়নের কালিকা পুর গ্রামের, মোঃ চয়েন প্রাং, সেকেন প্রাং, রিকাত প্রাং,বিল্লাত প্রাং এর কাছ থেকে জমি নাম খারিজ বাবদ ৮ হাজার টাকা নেওয়ার আভিযোগ উঠেছে।

উপজেলা ভুমি অফিসের নোটিশ বোর্ডে জমির নাম খারিজ এর সরকারী নির্ধারিত ফি নিম্ন বর্ণিত হারে যেমন – নাম জারী ক্ষেত্রে আবেদন কোট ফি ২০ টাকা, নোটিশ কারী ফি ৫০ টাকা, রেকড সংসোধন ফি ১০০০ টাকা, প্রতি কপি মিউটেশন খতিয়ান ফি ১০০ টাকা, সর্ব মোট ১১৭০ টাকা সরকারী ফি হলেও ফরিদপুর ভুমি অফিস সহকারী কানিজ ফাতেমা ৮ হাজার টাকা অধিক আদায় করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগকারী চয়েন প্রাং এর মুঠো ফোনে জানতে চাইলে চয়েনে ছেলে বলেন বিষয়টি নিয়ে ইউ,এন,ও স্যারের সাথে কথা হয়েছে আগামী রবিবারে সমাধান করে দিবেন।

এ বিষয়ে কানিজ ফাতেমার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে কানিজ ফাতেমা এ প্রতিবেদককে মোবাইলে বলেন আমি সুজানগর ছিলাম আজ কয়েক দিন যাবৎ ফরিদপুরে যোগদান করেছি। আমি কারো কাছে জমি বাবদ টাকা পয়সা নেই নাই আমি ফরিদপুরে আসার আগে এ ঘটনা ঘটেছে। কানিজ ফাতেমার সাথে মোবাইলে কথা বলার কিছুক্ষন পরেই ফরিদপুর উপজেলা ইউ,এন,ও তোফায়েল হোসেন এ প্রতিবেদক এর মুঠো ফোনে বলেন আপনি কে? আপনার পরিচয় কি? আপনি কি আমার অফিস সহকারী কানিজ ফাতেমার সাথে কথা বলেছেন? আপনি কি? তাকে বদলি করার ভয় দেখিয়েছেন। প্

রতিবেদক বদলি করার কোন কথা হয় নাই, টাকা নিয়েছে কি? জানতে চাইলে তিনি বলেন বিষয়টি নিয়ে আমার কাছে অভিযোগ আছে আমি দেখবো। এ বিষয়ে দ্বিতীয় বার ফরিদপুর ইউ,এন,ওর সাথে মুঠোফোনে ঘটনার সর্বশেষ অবস্থা জানতে চাইলে তিনি বলেন লিখিত ভাবে অভিযোগ পেয়েছি অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিব।

Check Also

এই সৌদি প্রবাসীদের কী হবে?

নিউজ ডেস্ক  : সৌদি আরবে নতুন করে বাংলাদেশ বিমানের ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না মেলায় জটিলতা কাটছে …

%d bloggers like this: