Home / জাতীয় / দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে যাত্রীদের জন্য কঠোর নিরাপত্তা

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে যাত্রীদের জন্য কঠোর নিরাপত্তা

নিউজ ডেস্ক: রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আযহা। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে রাজধানী ঢাকা থেকে মানুষ ছুঁটছে গ্রামের বাড়ি। তাই শেষ সময়ে আজ শুক্রবার রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের শিবালয় থানার পাটুরিয়া নৌরুটে দক্ষিণাঞ্চলের ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমেছে। এদিকে যাত্রীদের নিরাপত্তা রক্ষায় নৌপথসহ উভয় ঘাট এলাকায় অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করেছে জেলা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দেশের দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানী ঢাকার সড়ক যোগাযোগে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ নৌপথ। প্রতি বছর ঈদের আগে সেখানে ঘরমুখো ও ঈদ শেষে কর্মমুখো মানুষের ঢল নামে। এ সুযোগে উভয় পারের লঞ্চঘাট, ফেরিঘাটসহ বাসটার্মিনাল এলাকায় দালাল, ছিনতাইকারি ও পকেটমারের দৌরাত্ম্য বেড়ে যায়।

পাশাপাশি রাতের বেলা নৌরুটে চলন্ত ফেরিতে জুয়ারিদল তিন তাসের নামে সেখানে জুয়ার আসর বসিয়ে তারা যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকাপয়সা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোনসেটসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়। এদিকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দক্ষিণাঞ্চলের ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমে আছে। তবে ঈদে যাত্রীদের নিরাপত্তা রক্ষায় উভয় ঘাট এলাকায় অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করেছে জেলা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা আবুল কালাম আজাদ জানান, ঈদের আগে ঘরমুখো ও পরে কর্মমুখো যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গত সোমবার (২৮ আগস্ট) থেকে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করেছে জেলা রাজবাড়ীর জেলা পুলিশ প্রশাসন।

দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট, ফেরিঘাট, বাসটার্মিনাল ও মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ অবস্থান নিয়েছে। সেখানে পুলিশের পাশাপাশি রয়েছে সাদাপোষাকে গোয়ন্দাপুলিশ (ডিবি), আর্মডপুলিশ ব্যাটেলিয়ান ও র‌্যাব। তারা সার্বক্ষণিক ভাবে এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নজরদারি করছেন। মানিকগঞ্জের শিবালয় থানার পাটুরিয়া ঘাটেও অনুরূপ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এদিকে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসান হাবিব জানান, লঞ্চ ও বাসে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের পাশাপাশি ঘাট এলাকার নানা অনিয়ম রোধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত সার্বক্ষণিক ভাবে কাজ করছে।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার সালমা বেগম পিপিএম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘যাত্রীদের দুর্ভোগ লাঘবে দৌলতদিয়াঘাট এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে। ব্যাপক পুলিশি তৎপরতার মুখে বেসামাল হয়ে জুয়া, ছিনতাই ও পকেটমার চক্রের দুর্বৃত্তরা ইতিমধ্যে এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। ’ তবে এবার ঈদে এই নৌপথ দিয়ে ঘরমুখো মানুষ সম্পূর্ণ নিরাপদে তারা বাড়ি যেতে পারছেন বলে তিনি জানান।

Check Also

সৌদি আরবে সপ্তাহে ২০টি ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত

নিউজ ডেস্ক : সৌদি আরবে সপ্তাহে ২০ টি করে ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর মধ্যে …

%d bloggers like this: