Home / দেশজুড়ে / ঢাকা / দীর্ঘ হচ্ছে তালিকা নিখোঁজ মানুষের

দীর্ঘ হচ্ছে তালিকা নিখোঁজ মানুষের

দেশজুড়ে ডেস্ক: গত ১০ অক্টোবর থেকে গত মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রায় ১ মাসে সাংবাদিক, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, রাজনীতিকসহ ৪  জন নিখোঁজ রয়েছেন। এরও আগে ‘নিখোঁজ’ হয়েছেন  ৪ জন। তাঁদেরও এখনো উদ্ধার করতে পারেনি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। প্রতিটি ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে তদন্ত চলছে।পুলিশের তদন্ত চলে, স্বজনরা প্রত্যাশায় দিন গোনে। কিন্তু নিখোঁজ ব্যক্তিদের কারো কারো খোঁজই মেলে না। তাই নতুন করে কেউ নিখোঁজ হলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে সবখানে। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার থেকে ‘নিখোঁজ’  নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মোবাশ্বার হাসান সিজার  রয়েছেন । পুলিশের এক কর্মকর্তা গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন, সিজারকে উদ্ধারের জন্য পুলিশের পাশাপাশি বিভিন্ন বাহিনী কাজ শুরু করেছে। হয়তো খুব শিগগির তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাবে। গতকাল দুপুরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনে সংবাদ সম্মেলন করে দুই রাজনীতিকের নিখোঁজ হওয়ার তথ্য জানানো হয়েছে। তাঁদের একজনের নাম মিঠুন চৌধুরী, অন্যজন আশিক ঘোষ। তাঁরা গত সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশ জনতা পার্টি (বিজিপি) নামের একটি রাজনৈতিক দল গঠনের ঘোষণা দেন। বিজিপির সভাপতি ও মুখপাত্র হিসেবে মিঠুন চৌধুরী দলের দায়িত্ব পালন করেন। আর কেন্দ্রীয় নেতা হিসেবে কাজ করছেন আশিক ঘোষ অসিত। এ বিষয়ে ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার পুলিশের উপকমিশনার মো. মাসুদুর রহমান গতকাল রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আশিক ঘোষ ও মিঠুন চৌধুরী নামের কাউকে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ধরে এনেছে কি না সেটা আমার জানা নেই। ’ মোবাশ্বার হাসান সিজার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড সোসিওলজি ডিপার্টমেন্টের সহকারী অধ্যাপক। বাসা দক্ষিণ বনশ্রীতে। স্বজনরা জানায়, মঙ্গলবার সকালে বাসা থেকে বেরিয়ে গিয়ে ফেরেননি তিনি। খোঁজ না পেয়ে রাতে তাঁর বাবা মোতাহার হোসেন খিলগাঁও থানায় জিডি করেন। এই নিখোঁজের খবর জানাজানি হওয়ার পর বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্বজন, বন্ধু-বান্ধবসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উদ্বেগ জানায়। কিন্তু গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত তাঁকে উদ্ধারের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।এ বিষয়ে খিলগাঁও থানার ইন্সপেক্টর (অপারেশন) মোস্তাফিজুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করছি তাঁকে উদ্ধারের জন্য। কয়েকটি টিম কাজ করছে। ’

 

এক বিবৃতিতে সুজনের নেতারা বলেন, সংবিধানের বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী প্রত্যেক নাগরিকের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সরকারের। সরকার তথা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দায়িত্ব নিখোঁজ ব্যক্তিদের খুঁজে বের করে স্বজনদের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া এবং যারা এ রকম কর্মকাণ্ডে জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা। তাই অবিলম্বে সরকারকে এ ব্যাপারে দৃষ্টি দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

আর কত নিখোঁজ হবে আমরা জানি না কিন্তু এ থেকে মুক্তি চায় বাংলাদেের জনগন…… !

 

Check Also

এই সৌদি প্রবাসীদের কী হবে?

নিউজ ডেস্ক  : সৌদি আরবে নতুন করে বাংলাদেশ বিমানের ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি না মেলায় জটিলতা কাটছে …

%d bloggers like this: