Home / বিনোদন / ঢালিউড / তিন মাস ঘরবন্দি মুনমুন

তিন মাস ঘরবন্দি মুনমুন

নিউজ ডেস্ক: রূপ আর সাহসিকতার জন্য ঢাকাই সিনেমায় আলোড়ন তুলেছিলেন চিত্রনায়িকা মুনমুন। ক্যাপ্টেন এহতেশাম পরিচালিত ‘মৌমাছি’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে তার। ১৯৯৭ সালে মুক্তি পায় এটি।

এরপর ‘টারজান কন্যা’, ‘মৃত্যুর মুখে’, ‘রাজা’, ‘মরণ কামড়’, ‘রাণী ডাকাত’, ‘আজকের সন্ত্রাসী’ সহ অসংখ্য সুপারহিট সিনেমায় অভিনয় করেন এ অভিনেত্রী। বর্তমান সময়ের দেশ সেরা নায়ক শাকিব খানের প্রথম ব্যবসাসফল সিনেমার নায়িকাও ছিলেন মুনমুন। সিনেমার নাম ‘বিষে ভরা নাগীন’। এ পর্যন্ত তার অভিনীত চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৮৫, যার বেশির ভাগই ছিল সুপারহিট।

মহামারি করোনার কারণে গত প্রায় তিন মাস ধরে ঘরবন্দি মুনমুন। করোনাকালীন সময় কেমন কাটছে তা নিয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। এতে মুন মুন লিখেন—ঘরেই আছি আজ ৩ মাস হতে চললো। এমন অভিজ্ঞতা আমার আগেও ছিল। তখন ফেসবুকে কোনো ছবি পোস্ট করতাম না, ছদ্মনামে আইডি চালাতাম। তাই আমার কাছে তো ভালোই লাগছে। কারণ মা-সন্তানের খুব কাছে থেকে যত্ন করতে পারছি, স্বামীর সঙ্গে বন্ধুত্বটাও মজবুত হয়েছে। কিন্তু তারপরও আমাদের সৃষ্ট সমাজ ব্যবস্থা বলে কথা, কাজের টেনশনটা হতাশ করে তুলছে!

আমাদের সমাজ ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করে মুনমুন লিখেন—আমরা মানবজাতি যে সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তুলেছি, তার পরিবর্তন হওয়াটা যেন সহজ হচ্ছে না। সমাজে বেঁচে থাকা মানেই টাকার লড়াই। কে কত টাকা হাতিয়ে নিতে পারবে, সেই নীরব কম্পিটিশনে আমরা আবদ্ধ! বাঁচতে হলে ভালো ব্যবসা, চাকরি বা আমাদের মতো শিল্পী হতে হবে আর যা কিছুই করবে না কেন, সে বেকার হিসেবেই পরিচিত হয়ে যায়। করোনাকালীন সময়েও অনেকে বাধ্য হচ্ছেন ঘর থেকে বের হতে। কারণ সমাজ ব্যবস্থাটাই এমন করে গড়ে তোলা হয়েছে। গোটা পৃথিবীর মানব সমাজের বিশাল একটা পরিবর্তন এখন সময়ের দাবি।

Check Also

এন্ড্রু কিশোরের শেষকৃত্য ১৫ জুলাই

নিউজ ডেস্ক :  বাংলা সিনেমার প্লেব্যাক সম্রাট খ্যাত কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের মরদেহ রাজশাহীর একটি হাসপাতালের হিমঘরে রাখা …

%d bloggers like this: