Home / জাতীয় / নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার কোনো সুযোগ নেই: নাসিম

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার কোনো সুযোগ নেই: নাসিম

নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, নির্বাচনকালীন সরকার বা তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার আর কোন সুযোগ নেই।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের নির্বাচন, আমরা কেন অন্যদের কাছে নির্বাচন নিয়ে প্রেসক্রিপসন নিতে যাব।
সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে।

বিএনপি’র উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, নির্বাচন কিভাবে হবে এটা একটা নির্ধারিত বিষয়, এটা নিয়ে কথা বলে লাভ নেই। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যাবস্থা নিয়ে অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে, আর সুযোগ নেই।

মোহাম্মদ নাসিম আজ বুধবার ঢাকা রিপোর্টারস ইউনিটির (ডিআরইউ) উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী স্বাস্থ্য ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ‘নভো নরডিক্সের’ সহোযোগিতায় এ ক্যাম্পে প্রথম দিন ডায়াবেটিকস এবং দ্বিতীয় দিনে চোখের চিকিৎসা দেওয়া হবে।

ঢাকা রিপোর্টারস ইউনিটির সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে সভায় বাংলাদেশ ডায়াবেটিকস সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ, কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রকল্প পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল হাসেম খান, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী, ন্যাশনাল হেলথ কেয়ার নেটওর্য়াকের সিইও ডা. এম এ সামাদ, বারডেম হাসপাতালের অ্যান্ডোক্রিনোলোজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. ফারুক পাঠান, নভো নরডিক্সের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আনন্দ শেঠি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের কার্যকরী সদস্য নুরুল ইসলাম হাসিব।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সংবিধানের বাহিরে আমরা যাবো না, এটা নিয়ে কথা বলে লাভ নেই। এর জন্য অহেতুক মাঠ গরম করবেন না।
১০ বছর আগে যা হয়েছে এখন আর তা হবে না।

বিএনপিকে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণের আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, নির্বাচনকালিন সরকার বা তত্ত্ববাধায়ক সরকারের দাবীতে আন্দোলন করে কোন লাভ নেই। জনগণের প্রতি বিশ্বাস রাখুন। জনগণ যাদের যোগ্য মনে করবে তাদের ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে। আমরা যদি ভোটে হেরে যাই মেনে নেব।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডায়াবেটিকস আজকে সারা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। এ থেকে বাঁচাতে হলে আমাদের সচেতন হতে হবে। নিয়মিত হাঁটতে হবে, ফাস্ট ফুড বর্জন করতে হবে।

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদেরকে মায়ের মমতায় আশ্রয় দিয়েছেন। যে কারণে তাকে মাদার অব হিউম্যানিটি বলা হচ্ছে। আরাকানে কোনো স্কুল নেই, চিকিৎসা কেন্দ্র নেই। যে কারণে তারা আমাদের দেশে ঢুকছে শরীরে বিভিন্ন ধরনের রোগ নিয়ে। আমরা স্বাস্থ্য ক্যাম্প স্থাপনের মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা দিচ্ছি। বিভিন্ন রোগের টিকা দিচ্ছি, যা তারা আগে পায়নি।

Check Also

রাতে জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) …

%d bloggers like this: