Home / ফিচার / টি-রেক্সের সামনের হাত দুটো ছিল মারণাস্ত্র!

টি-রেক্সের সামনের হাত দুটো ছিল মারণাস্ত্র!

ফিচার ডেস্ক:  প্রাগৈতিহাসিক আমলের প্রাণীগুলো ছিল সত্যিই দুঃস্বপ্নের। সেগুলোর মধ্যে আবার যে প্রাণীটি অন্যদের কাছে মূর্তিমান বিভীষিকা হয়ে দেখা দিত, সেটা হলো টিরানোসরাস ডাইনোসর। এই টি-রেক্সকে নিয়ে গবেষণার অন্ত নেই। নতুন নতুন তথ্য বেরিয়ে আসছেই। মানুষও এবার জানতে চায় বিলুপ্ত সেই দানব সম্পর্কে। টিরানোসরাস নামটি শুনলেই মাথায় ভেসে ওঠে যে, বিশাল এক দানব দুই পায়ে দৌড়ে আসছে। তার সামনে ছোট দুটি হাত যেন বেমানান। অনেকেই ভেবে অবাক হন যে, এত বড় একটি প্রাণীর দেহে এই ছোট দুই অঙ্গ সত্যিই মানায় না। এত ছোটই বা হয় কীভাবে? এবার সে প্রশ্নের জবাব মিলেছে বিজ্ঞানীদের কাছে। তারা বুঝতে পারছেন, এমনি এমনি তাদের এই দুই হাত দেওয়া হয়নি। হাত দুটো কিন্তু ভয়ংকর অস্ত্রের মতো কাজ করতো। ছোট দুই হাতেই ছিল ৪ ইঞ্চি লম্বা শক্ত নখ। কাছ থেকে যেকোনো শত্রুকে ওই দুই হাত দিয়ে ছিন্ন-ভিন্ন করে ফেলতো তারা।

ইউনিভার্সিটি অব হাইয়াইয়ে জীবাশ্মবিদ স্টিভেন স্ট্যানলি এ বিষয়ে তথ্য উপস্থাপন করেছেন দ্য জিওলজিক্যল সোসাইটি অব আমেরিকার সামনে। টিরানোসরাসের বেখাপ্পা ছোট দুই হাত মারাত্মক অস্ত্র হিসেবে কাজ করতো। ওগুলো দিয়ে শত্রুর দেহ একেবারে ছিলে ফেলতো তারা। আসলে প্রকৃতি এই প্রাণীটিকে অস্ত্রে পরিপূর্ণ করে দিয়েছিল। শিকার ধরতে বা পেছন থেকে আক্রমণ করতে কিংবা যুদ্ধের সময় এই হাতের ভয়ংকর আক্রমণের শিকার হতো অন্যরা। এগুলো টিরেক্সের তুলনায় ছোট, কিন্তু দারুণ শক্তিশালী। আর নখগুলো ছিল পাথরের মতো শক্ত ও ধারালো। মজার বিষয় হলো, আবার এই হাত দুটো প্রেম নিবেদনের জন্যেও ব্যবহৃত হতো। কেউ ভাবতেও পারবেন না যে, টি-রেক্স প্রেম নিবেদনের ক্ষেত্রে খুবই স্পর্শকাতর ছিল, বলেন স্ট্যানলি। মাংসাশী প্রাণীটি তার চোয়ালের ৯ ইঞ্চি লম্বা দাঁত বসিয়ে দিতো শিকারের দেহে। প্রচুর মাংস খেতো সে। আর সামনের হাত দুটো দিয়ে মাংস খাওয়ার বিষয়টিকে সুবিধাজনক করে নিতো। এক দল গবেষক জানান, দৈহিক মিলনের আগে দুটো টি-রেক্স একে অপরের সঙ্গে নাক ঘষাঘষি করতো।

Check Also

বিজ্ঞান ও ধর্মগ্রন্থসমূহে করোনাভাবনা

নিউজ ডেস্ক: কোনো সন্ত্রাসী বা জঙ্গিগোষ্ঠী নয়। পারমাণবিক বোমার হুমকি নয়। পৃথিবীব্যাপী একটাই ত্রাস, করোনাভাইরাস। …

%d bloggers like this: