Home / কৃষকের মাঠ / ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী নাজিরপুরের মেহেদী হাসান

ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী নাজিরপুরের মেহেদী হাসান

নাজিরপুর প্রতিনিধি: বর্তমান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী জনাব শ ম রেজাউল করিম এমপি এর এলাকা নাজিরপুর উপজেলার খামারিরা দিন দিন ঝুঁকছেন প্রাণিসম্পদ খামারের দিকে৷ অনুকূল পরিবেশ, প্রাকৃতিক সম্পদের প্রাচুর্য আর স্থানীয় প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার প্রত্যক্ষ কারিগরী সহায়তা পেয়ে উপজেলার খামারিরা এগিয়ে আসছেন প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে; ভূমিকা রাখছেন দেশের অর্থনীতিতে৷

নাজিরপুরর কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের কুলাইতলী গ্রামের কৃষক পরিবারের সন্তান মেহেদী হাসান৷ বেশিদূর পড়াশোনা করেননি৷ কিন্তু প্রতিনিয়ত নতুন কিছু করার নেশায় পরিশ্রমী মেহেদী ছুটে বেড়িয়েছেন দেশের বিভিন্ন এলাকায়৷ ঘুরে ঘুরে দেখেছেন, শিখেছেন হাতে কলমে৷ আগে থেকেই লেয়ার মুরগীর খামার করতেন৷ একসময় মনে হলো ছাগলের খামার করবেন৷ যেই ভাবা সেই কাজ৷ ২০১৫ সালে শুরু করেন ৪২ টি ছাগল দিয়ে৷ প্রথমেই হোঁচট খান তিনি৷ বেশ কিছু ছাগল মারা যাওয়ায় শরণাপন্ন হন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃসুদেব সরকারের৷

বিজ্ঞানভিত্তিক উপায়ে লালন পালন আর টেকনিক্যাল বিষয়গুলো ভালভাবে রপ্ত করেন মেহেদী৷ এবার নতুন করে শুরু করেন তিনি ৷ না আর কোনো নতুন ছাগল কেনেননি৷ এক অদৃশ্য জিয়ন কাঠির ছোঁয়ায় বদলে যেতে থাকে দৃশ্যপট৷ তিন বছরের মাথায় তার খামারে ছাগলের সংখ্যা প্রায় পৌনে দুইশোটি৷ বিক্রয় করেছেন আরো প্রায় ১০০ টি৷ হয়ে উঠেছেন এলাকার আদর্শ খামারী৷ দীপ্ত কৃষি অনুষ্ঠানে তাঁর খামারের উপর নির্মিত ভিডিও ডকুমেন্টারী ৭৮০০০ বার মানুষ দেখেছেন এবং অনেক উদ্যোক্তা তাঁর খামার পরিদর্শন করেছেন৷

মেহেদীর বিষয়ে জানতে চাইলে নাজিরপুরের উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেব সরকার বলেন, মেহেদী খুবই পরিশ্রমী আর বিনয়ী৷ তিনি পরামর্শ মোতাবেক কাজ করেন, খামারের জৈব নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দেন এবং অসুস্থ ছাগলকে কোয়ারেন্টিনে রেখে চিকিৎসা করান৷ব্যস এতটুকুই তার সাফল্যের সূত্র৷ আমরা এবার বঙ্গবন্ধু কৃষি পদকের জন্য তাঁকে প্রাণিসম্পদ ক্যাটাগরীতে উপজেলা থেকে মনোনয়ন দিয়েছি৷ তাঁর জন্য শুভ কামনা৷

Check Also

নড়াইল থেকে হারিয়ে যাচ্ছে মৌমাছি ও মধু

নড়াইল জেলা: নড়াইলে থেকে হারিয়ে যাচ্ছে মানব দেহের উপকারী মৌমাছি। মানব দেহের জন্য পৃথীবির সবচেয়ে …

%d bloggers like this: