Breaking News
Home / আর্ন্তজাতিক / অবশেষে মুক্তি পাচ্ছেন ৪শ’ তালেবান সদস্য

অবশেষে মুক্তি পাচ্ছেন ৪শ’ তালেবান সদস্য

নিউজ ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবানের মধ্যকার শান্তিচুক্তি অনুযায়ী ৪শ’ তালেবান বন্দিকে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আফগান পরিষদ। তাদেরকে মুক্তি দেয়া হবে কিনা এ বিষয়ে শুক্রবার দেশটির প্রবীণ নেতা, রাজনীতিবিদসহ অনেকে রাজধানী কাবুলে আলোচনায় বসেন।

গেল ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্র এবং সশস্ত্র তালেবান প্রতিনিধিদের মধ্যে শান্তি চুক্তি হয়। চুক্তিমতে পর্যাক্রমে ৫ হাজার তালেবান সদস্যকে মুক্তি দেয়ার কথা রয়েছে। আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি জানিয়েছেন, শান্তিচুক্তি অনুযায়ী এই ৪’শ বন্দী ছাড়া সবাইকেই মুক্তি দেয়া হয়েছে। তাদের অপরাধ গুরুতর হওয়ায় এখন ছাড়া হয়নি বলে জানান ঘানি। বন্দীরা হত্যা, অপহরণসহ নানা অপরাধে সাজা প্রাপ্ত।

কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় শুক্রবার কড়া নিরাপত্তা তিন হাজারের বেশি নানা পেশা-শ্রেণীর মানুষ রাজধানী কাবুলের লোয়ায় আলোচনায় বসেন। সেখান থেকেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্তে আসে। আফগানিস্তানে দীর্ঘ ১৯ বছর ধরে চলা যুদ্ধ বন্ধে এই শান্তি চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে আসছে আফগানবাসী। একই সঙ্গে দেশটি থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেবে ওয়াশিংটন, যা চুক্তিতে উল্লেখ ছিল।

এর আগে, যুক্তরাষ্ট্র এবং আফগান সরকারের যৌথ ঘোষণায় বলা হয়, ”যুক্তরাষ্ট্র-তালেবানের চুক্তি অনুযায়ী তালেবান যদি তাদের দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে, তাহলে আগামী ১৪ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে অবশিষ্ট সকল সৈন্য প্রত্যাহার করে নেবে যৌথবাহিনী।” তবে আফগানিস্তান থেকে ইতিমধ্যে বেশ কিছু সেনা প্রত্যাহারও করেছে পেন্টাগন।

যদিও আফগানিস্তানে প্রায় সময় বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। মারা যাচ্ছেন অনেকে বেসামরিক নাগরিক। এতে শান্তি চুক্তি হুমকিতে পড়ে। তালেবান বাহিনী ও মার্কিন সেনাদের মধ্যে সংঘাতে এ পর্যন্ত ২৪০০-র বেশি মার্কিন সেনা নিহত হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছেন বহু সশস্ত্র তালেবান যোদ্ধা।

দেশটিতে সংঘর্ষের অবসানের ব্যাপারে প্রতিশ্রুতি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও। আফগান যুদ্ধে এ পর্যন্ত বহু মানুষ হতাহত হয়েছেন। দেশটিতে শান্তি ফেরার অপেক্ষায় দিনগুনছেন আফগানবাসী।

Check Also

দিনে সাড়ে ৯৬ হাজার করোনা শনাক্ত নিয়ে আবারো রেকর্ড ভারতের

নিউজ ডেস্ক : ব্রাজিলকে টপকে ভারতে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে কয়েকদিন আগেই। কিন্তু এবার ধীরে …

%d bloggers like this: